মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

সাহতা উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

স্থানীয় বিদ্যুৎসাহী ব্যক্তিবর্গের প্রচেষ্ঠায় ও সাহতা গ্রামবাসীর উদ্যোগে প্রতিষ্ঠনাটি ১৯৬৯ সনে জুনিয়র স্কুল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় এ্বং ০১/০৭/১৯৭৩ সনে জুনিয়র হিসেবে সরকার কর্তৃক স্বীকৃতি লাভ করে। অতঃপর ০১/০১/১৯৯৫ সন হএত প্রতিষ্ঠানটি ৯ম শ্রেণিতে পাঠদানের অনুমতি লাভের পর ০১/০১/২০০১ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক উচ্চ বিদ্যালয় হিসেবে সরকারি বেতন-ভাতাদি প্রাপ্তির অনুমোদন লাভ করে। বিদ্যালয়টির স্বীকৃতির মেয়াদকাল ৩১/১২/২০১৪ খ্রিঃ পর্যন্ত বলৎ রয়েছে। বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা মৃত হাছান আলী খান, সাহতা ও দাতা মৃত জগৎ চন্দ্র সাহা সাহত।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
সজল কান্ত সরকার ০১৭১০০৭০০৭৮ sahota.barhatta@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ক্র: নং

শ্রেণি

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

১.

ষষ্ঠ

৩৬

৪১

৭৭

২.

সপ্তম

৩৩

২৭

৬০

৩.

অষ্টম

৪৩

৩৯

৮২

৪.

নবম

১৬

৩৬

৫২

৫.

দশম

১২

১০

২২

নর্বমোট

১৪০

১৫৩

২৯৩

৭০%

প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে নিয়মিত কমিটি বিদ্যমান। মেয়াদকাল ০৩/০৬/২০১২ থেকে ০২/০৬/২০১৪ খ্রিঃ পর্যমত্ম।

ক্র: নং

পরীক্ষার নাম

সনওয়ারী পাশের হার  

২০১০

২০১১

২০১২

০১

জে.এস.সি

৭০.৪০%

৭০%

 

০২

এস.এস.সি

৪৩%

৮২%

৭০%

ক) প্রতি বছর বিভিন্ন সময়ে শিক্ষা ভিত্তিক অনুষ্ঠান (বির্তক প্রতিযোগিতা, রচনা ও উপস্থিত বক্তৃতা) সমীহে শিক্ষার্থীগণ অংশ  গ্রহণ পূর্বক পুরস্কার ও সনদপত্র অর্জন করে থাকে।   

খ) সহ পাঠ্যক্রমের কেঐত্র প্রতিবছর উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে বার্ষিক ক্রীড়া,  বিচিত্রানুষ্ঠান ও সংগীতানুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতঃ চ্যাম্পিয়ানশীপ অর্জন করে থাকে।

গ) এলাকার সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ড (খাল খনন, নদী, খনন, মজা পুকুর  পরিষ্কার, বৃক্ষরোপন, ঝড়েবিদ্ধস্ত ঘরবাড়ি মেরামত) বাস্তবায়নে শিক্ষক ও ছাত্র/ছাত্রীবৃন্দ বিশেষ ভূমিকা রাখে। 

ক) বিদ্যালয়ে অনতিবিলম্বে বিজ্ঞানম বাণিজ্য ও কম্পিউটার শাখা খোলা।  

খ) শিক্ষার মান উন্নয়ন করা এবং শ্রেণিভিত্তিক ও পাবলিক পরীক্ষায় ১০০% (শতভাগ) ফলাফল অর্জন করা।

গ) বিদ্যালয়ের সহপাঠ্য কার্যক্রম ওআর উন্নত ও হতিশীল করা।

ঘ) বিদ্যালয়ের চারপাশের আর বেশী করে ফলজ,বনজ ও ঔষধি বৃক্ষরোপন করা

ঙ) বিদ্যালয়ের চারপার্শ্বে সীমানা প্রাচীর করা।

চ) ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য শিক্ষার্থীদের কম্পিার ও কারিগরি শিক্ষায় দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলা।

পূর্বদিকে বারহাট্টা উপঝেলার সদর যা থেকে ১০ কি.মি, কাঁচা ও সেমি পাকা রাসত্মা। পশ্চিম দিকে জেলা সদর যা থেকে ১২ কি.মি সেমি পাকা ও পাকা রাসত্মা । উত্তর দিকে ঠাকুরাকোণা রেলওয়ে স্টেশান যা থেকে ৬ কি,মি কাচা রাস্তা।